সারাবাংলা
সুবর্ণচরে মা-মেয়েকে ধর্ষণ মামলায় ঢাকায় আরেক আসামি গ্রেফতার
  8, February, 2024, 7:38:17:PM

নোয়াখালী প্রতিনিধি
নোয়াখালীর সুবর্ণচরে মা-মেয়েকে সংঘবদ্ধ ধর্ষণের মামলায় হারুন নামে আরেক আসামিকে গ্রেফতার করা হয়েছে। গ্রেফতার মো.হারুন (৪২) চরওয়াপদা ইউনিয়নের চরকাজী মোখলেছ গ্রামের মৃত বশির আহম্মদের ছেলে।
আজ বৃহস্পতিবার ভোররাতের দিকে তাকে ঢাকা গাবতলী থেকে গ্রেফতার করা হয়।
জেলা পুলিশ সুপার মোহাম্মদ আসাদুজ্জামান জানিয়েছেন, জেলা পুলিশের একটি টিম ঢাকা থেকে হারুনকে গ্রেফতার করে। হারুন এ মামলার এজাহারভুক্ত ২ নং আসামি। ঘটনার পর সে বিভিন্ন স্থানে পালিয়ে বেড়ায়। এমনকি যশোর সীমান্ত দিয়ে একবার ভারতে পালিয়ে যাওয়ারও চেষ্টা করে। তথ্য প্রযুক্তির সহায়তায় ঘটনার পর থেকে পুলিশ তার গতিবিধি নজরে রাখে। এ নিয়ে এ মামলার তিন আসামির সবাইকে গ্রেফতার করে পুলিশ।
অন্যদিকে, এ মামলার প্রধান আসামি চরওয়াপদা ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি, সাবেক ইউপি সদস্য আবুল খায়ের ওরফে মুন্সি মেম্বারকে গতকাল (বুধবার) আদালতে উপস্থাপন করে অধিকতর জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ৭ দিনের রিমান্ড আবেদন করে পুলিশ। এ বিষয়ে আজ শুনানি শেষে আদেশের দেওয়ার হবে। মামলার অপর আসামি মেহরাজ উদ্দিন (৪৮) অপরাধ স্বীকার করে আদালতে জবানবন্দী দিয়েছেন। বুধবার বিকেলে জেলার সিনিয়র জুডিসিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট তানিয়া ইসলাম ফৌজদারি কার্যবিধির ১৬৪ ধারায় আসামির স্বীকারোক্তিমূলক জবানবন্দি রেকর্ড করেন। এদিকে আসামিরা ধর্ষণের ঘটনাকে চুরি নাটক সাজিয়েছে বলে জানান পুলিশ সুপার।

এ সময় আসামি মেহেরাজ জানিয়েছেন, এ মামলার অপর দুই আসামি আবুল খায়ের মুন্সি ও মো: হারুনের প্রস্তাবে রাজি হয়ে পূর্ব পরিকল্পনা অনুযায়ী ঘটনার দিন রাতে সে ভুক্তভোগী ওই নারীর স্বামীর অনুপস্থিতে বসতঘরে সিঁধ কেটে প্রবেশ করে। এরপর সে ঘরের দরজা খুলে দিলে মুন্সি মেম্বার ও হারুন ভেতরে প্রবেশ করে। একপর্যায়ে মুন্সি মেম্বার ও হারুন দুজন মিলে পালাক্রমে ওই নারীকে গণধর্ষণ করে। এ সময় মেহরাজ পাশের কক্ষে থাকা ওই নারীর ১২ বছরের শিশু কন্যাকে ধর্ষণ করে। পরে স্বর্ণালংকার ও টাকা নিয়ে তিনজন ঘর থেকে বেরিয়ে যায়।

উল্লেখ্য, গত সোমবার (৫ ফেব্রুয়ারি) দিবাগত রাত ২টার দিকে চরওয়াপদা ইউনিয়নে চরকাজী মোখলেছ গ্রামের একটি নতুন বাড়িতে সিঁধ কেটে এক গৃহবধূ ও তার শিশু কন্যাকে ধর্ষণের ঘটনা ঘটে। এ সময় ঘর থেকে দুটি নাকফুল, কানের দুল এবং নগদ ১৭ হাজার ২২৫ টাকা লুট করে নিয়ে যায়।

এ ঘটনায় ভুক্তভোগী নারী বাদী হয়ে আবুল খায়ের মুন্সি ও মো.হারুনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাত এক ব্যক্তিকে আসামি করে সিঁধ কেটে ঘরে প্রবেশ, পরস্পর সহযোগীতায় গণধর্ষণ, ধর্ষণ, ভয়ভীতি প্রদর্শনের অপরাধে চরজব্বার থানায় মামলা দায়ের করেন।

মামলার পর মঙ্গলবার দুপুরে জেলা শহর থেকে আবুল খায়ের মুন্সিকে গ্রেফতার করে পুলিশ। এরপর গতকল মঙ্গলবার রাতে চরক্লার্ক ইউনিয়ন থেকে মেহেরাজকে গ্রেফতার করা হয়। মেহেরাজ একই এলাকার নুরুল আমিনের ছেলে।



     সারাবাংলা
দক্ষিণ আফ্রিকায় বাংলাদেশি দম্পতিকে গুলি করে হত্যা
চট্টগ্রাম-১০ আসনের এমপি মহিউদ্দিন বাচ্চুর জামিন
সুবর্ণচরে মা-মেয়েকে ধর্ষণ মামলায় ঢাকায় আরেক আসামি গ্রেফতার
এবার সংরক্ষিত নারী আসনের ফরম কিনলেন মাহিয়া মাহি
নতুন সরকারের সর্বোচ্চ অগ্রাধিকার হল দ্রব্যমূল্য নিয়ন্ত্রণ : ওবায়দুল কাদের
বইমেলায় শাহানাজ ইয়াসমিনের উপন্যাস ‘সাত নম্বর কেবিন’
নোয়াখালীতে পরাজিত প্রার্থীর পোলিং এজেন্টকে হত্যা, তিন জন গ্রেফতার
হবিগঞ্জ-৪ আসনের নির্বাচন
৪৩ বছরের রেকর্ড ভাঙলেন ব্যারিস্টার সুমন
হোয়াটসঅ্যাপে যোগাযোগ গোপন রাখার ৫ উপায়
বিদেশি শক্তির উস্কানি মানব না: ওবায়দুল কাদের
  সর্বশেষ
কিছু মেগা প্রকল্প এ মুহূর্তে পিছিয়ে দেয়া যেত: সাবেক পরিকল্পনামন্ত্রী
মক্কায় ১৫ লাখের বেশি বিদেশী হজযাত্রী জড়ো হয়েছেন
ড. ইউনূসের যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে: দুদক পিপি
দাম বাড়তে পারে যেসব পণ্যের
সংসদে অর্থমন্ত্রীর বাজেট উপস্থাপন
১৯ জুন থেকে নতুন অফিস সূচি, প্রজ্ঞাপন জারি
মন্ত্রিত্ব নিয়ে শরিকদের চাপে মোদি
মোদির শপথ অনুষ্ঠানে যোগ দিতে শুক্রবার দিল্লি যাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রী
xxxxxxxxxxxxxxxxx